শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) আসনে আইন মন্ত্রী আনিসুল হক বে-সরকারি ভাবে নির্বাচিত কসবায় ভোট দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত-৪ কসবায় এলজিইডি’র শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান আগরতলায় স্রোত আয়োজিত লোকসংস্কৃতি উৎসব কসবা প্রেসক্লাব সভাপতি’র উপর হামলার প্রতিবাদে মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সভা কসবায় চকচন্দ্রপুর হাফেজিয়া মাদ্রাসার বার্ষিক ফলাফল ঘোষণা, পুরস্কার বিতরণ ও ছবক প্রদান শ্রী অরবিন্দ কলেজের প্রথম নবীনবরণ অনুষ্ঠান আজ বছরের দীর্ঘতম রাত, আকাশে থাকবে চাঁদ বিএনপি-জামাত বিদেশীদের সাথে আঁতাত করেছে-কসবায় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ১৩ দিনের জন্য ভোটের মাঠে নামছে সশস্ত্র বাহিনী
বিতর্কিত আ.লীগ নেতা ‘ শাহআলমকে সম্মাননা ব্যাখ্যা চান ডিসি

বিতর্কিত আ.লীগ নেতা ‘ শাহআলমকে সম্মাননা ব্যাখ্যা চান ডিসি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

করোনার ত্রাণ কেলেংকারীতে সমালোচিত আ.লীগ নেতা শাহআলম সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা স্মারক (পুরস্কার) দেওয়ার ব্যাখ্যার তলব করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক।

আজ রোববার রাতে ব্রাহ্মণাবড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান সাক্ষরিত এক এক চিঠিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মাসুদুল হাসান তাপস কে ২৪ ঘন্টার মধ্যে লিখিত ব্যাখ্যার তলব করেন।

এর আগে গত শনিবার করোনা কালে আলোচিত সমালোচিত সেই আ.লীগ নেতা শাহআলম সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা স্মারক (পুরস্কার) দেওয়া হয়।

এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হলে শাহ আলমের সম্মাননা নিয়ে ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় উঠে।

উল্লেখ্য জেলা আওয়ামীলীগের শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক মোঃ শাহআলম করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের দেয়া বিশেষ ওএমএস কেলেংকারীতে আলোচিত সমালোচিত হন। জেলা শিল্প ও বনিক সমিতির পরিচালক পদে থাকা এই নেতা ভিক্ষুক, ভবঘুরে শ্রেনীর লোকজনের বদলে নিজের স্ত্রী, কন্যাসহ ১৩ স্বজনের নাম তালিকাভূক্ত করেন। একজন ওএমএস ডিলার হয়ে এই অনিয়মে জড়িত হওয়ায় গত বছরের মে মাসে তার ডিলারশীপ বাতিল করে জেলা ওএমএস কমিটি।

টিসিবি’র ডিলার হিসেবেও ভোক্তাদের বঞ্চিত করার অভিযোগ ছিলো তার বিরুদ্ধে।
করোনা পরিস্থিতিতে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট (জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার) সন্দ্বীপ তালুকদারের নেতৃত্বে শহরের কাউতলী মসজিদপাড়ার লোকমান হোসেনের(৪৫) দোকান সংলগ্ন বাসায় অভিযান চালিয়ে টিসিবি’র মালামাল পাওয়া যায়।
তার বাসা থেকে জব্দ করা মালামালের মধ্যে রয়েছে ২৪ বস্তায় থাকা ১২’শ কেজি চিনি, ৪বস্তা (২’শ কেজি)মশুরী ডাল এবং ৩ বস্তায় থাকা দেড়শো কেজি ছোলা বুট।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পদ দখলে নিয়ে অপকর্মে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে এই নেতার বিরুদ্ধে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেডক্রিসেন্ট ইউনিটের সর্বশেষ কার্যকরী কমিটির সাধারন সম্পাদক। সর্বোচ্চ ব্যবসায়িক সংগঠন এফবিসিসিআই’র সদস্য পদও রয়েছে তার। জেলা রেস্তোরা মালিক সমিতির নেতা হিসেবে ব্যবসায়িক বিভিন্ন সংগঠনে জায়গা করে নিলেও তার নিজের কোন হোটেল-রেস্তোরা না থাকার অভিযোগ রয়েছে। তিনি জেলা রেস্তোরো মালিক সমিতির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক পদ আগলে রেখেছেন বেশ ক’বছর ধরে। জেলা ক্রীড়া সংস্থার সদস্য, জাতীয় অন্ধ কল্যাণ সমিতির সাধারন সম্পাদক, সুইড ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক এবং কাউতলী শহীদ লুৎফুর রহমান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতির পদও তার। এইচএসসি পাশ হয়ে তিনি এই পদ দখল করে রেখেছেন। জেলা জামে মসজিদ কমিটির যুগ্ম সম্পাদক পদেও রয়েছেন তিনি। নিজ গ্রাম কাউতলীর ঈদগাহ মাঠের প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক, কাউতলী কবরস্থান কমিটির সাধারন সম্পাদক শাহআলম। আর তাতেই অনিয়মে বেপড়োয়া হয়ে উঠেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




raytahost-demo
© All rights reserved © 2019
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD